Web Hosting Category ওয়েব হোষ্টিংয়ের প্রকারভেদ

Web Hosting Category ওয়েব হোষ্টিংয়ের প্রকারভেদ

- in Blogging, Tutorials
117
Comments Off on Web Hosting Category ওয়েব হোষ্টিংয়ের প্রকারভেদ

Web Hosting Category বা ওয়েব হোষ্টিংয়ের প্রকারভেদঃ

ওয়েব হোষ্টিং পরিচিতির প্রথম অংশের পর এবারে আমরা জানবো, Web Hosting Category বা ওয়েব হোষ্টিং এর প্রকার সম্পর্কে।

কিরুপ ব্লগের জন্য কোন টাইপের হোষ্টিং দরকার বা কোন ধরনের সাইটের জন্য কতটুকু ক্ষমতা বা সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন ওয়েব সার্ভার আবশ্বক তা জানার জন্য ওয়েব হোষ্টিং এর প্রকারভেদ সম্পর্কে সঠিক ধারনা রাখাও অত্যন্ত জরুরী । আসুন তবে জেনে নিই ওয়েব হোষ্টিং এর প্রকারগুলি সম্বন্ধে। 

Web Hosting Category তে সাধারনত মূল্য ও ব্যবহারের সুবিধা অনুযায়ী ওয়েব হোষ্টিংকে প্রধানত চারটি প্রকারে ব্যবহার করা হয়:

1. Shared Web Hosting: একটি সার্ভার বা হোষ্টিং স্পেসকে বেশ ক,জনে মিলে যার যার মত ভিন্ন ভিন্ন ভাবে সি প্যানেল নিয়ে ব্যবহার করা।এটিই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সাশ্রয়ী ওয়েব হোষ্টিং সার্ভিস। শেয়ারড ওয়েব হোষ্টিং Linux Operating System এর সাহায্যে পরিচালিত হয়ে থাকে।

2. Website Builder: এটি অনলাইন ভিত্তিক ওয়েবসাইট ডিজাইন ও প্রকাশ করার সেরা মাধ্যম। এই পদ্ধতীতে পূর্ব হতেই Website Building Software এর সাথে হোষ্টিং সার্ভার লিংকিং করা থাকে, তাই সার্ভার সেটাপ বা অন্যান্ন ঝামেলা এখানে পোহাতে হয়না।এই পদ্ধতীতে কেবল টেনে এনে ছেড়ে দিয়েই (Drag and Drop) ওয়েবসাইট ডিজাইন করা যায়। এই সার্ভিসটি ব্যবহার করতে Website Builder Sites এ যুক্ত হয়ে ফ্রিতে অথবা প্রিমিয়াম প্লান ক্রয় করে কাজ করতে হয়।এ ধরনের পদ্ধতীতে কোডিং জ্ঞান ছাড়াই যে কেও ওয়েবসাইট বানাতে পারে।Website Builder Service এর তালিকায় WeeblyWix অন্যতম।

3. Cloud Hosting: Cloud Web Hosting পদ্ধতীটি হোষ্টিং জগতের সেরা ও অন্যতম আধুনিকায়ন পদ্ধতী।অনেকগুলো সার্ভারের সমন্বয়ে ক্লাউড হোষ্টিং পরিচালিত হয়। এই পদ্ধতীতে একজন ব্যবহারকারী একই সময়ে Shared Hosting Space এবং Dedicated Hosting Performance ব্যবহারের সুবিধা লাভ করে।যার ফলে একজন ব্যবহারকারী সম্পর্ন ভিন্নভাবে সার্ভারের সকল পারফরমেন্স একান্ত নিজে উপভোগ করে, আর স্পেস এর অংশকে শেয়ারড হোষ্টিং এর ন্যায় আলাদাভাবে ব্যবহার করতে পারে।

4. Dedicated Hosting: অনলাইনে সম্পূর্ণ নিজস্ব ও একমাত্র সার্ভার ব্যবস্থা।এখানে স্পেস বা পারফরম্যান্স কোন কিছুরই কোন ভাগীদ্বার নেই। তবে এই সুবিধা পাবার জন্য টাকার পরিমানটাও ভালভাবেই মেটাতে হয়। সকল প্রকার হোষ্টিং সার্ভিসের মূ্ল্যে এটিই ব্যয়বহুল কিন্তু ওয়েবসাইট পারফরম্যান্সে সেরা। সাধারনত সাইটের ভিউজের চাহিদার বৃদ্ধি ঘটলে বা বিজনেস ভিত্তিক ওয়েবসাইটের জন্য এই ধরনের হোষ্টিং সার্ভিস ব্যবহার করা শ্রেয়।

একটি সচল কম্পিউটারের হার্ড ডিস্ককেও Web Hosting Space হিসাবে ব্যবহার করা যায়।কিন্তু তার জন্য সর্বদা ঐ কম্পিউটারটি একটিভ থাকতে হবে ও অনলাইনে থাকতে হবে, যা কষ্টসাধ্য ও অসম্ভব প্রায়।তাই অনলাইন সার্ভারের একটা অংশ ভাড়া নিয়েই সবাই Web Files কে হোষ্ট করে থাকে।

ওয়েব হোষ্টিং যে কোন প্রকার ব্লগ বা সাইটের জন্য দ্বিতীয়তম আবশ্বকীয় ব্যাপার।তবে উন্নততর সেবার জন্য ভাল ওয়েব হোষ্টিং তথা Reliable Web Hosting বেছে নেয়াটা ভীষনভাবে জরুরী।কেননা ওয়েব হোষ্টিং হচ্ছে একটা সাইটের হৃদয় বা প্রান।প্রানে যদি বল না থাকে তবে কি হয় তা নিশ্চয় সবারই জানা।তাই ভাল মানের ও বিশ্বস্ত ওয়েব হোষ্টিং বেছে নেয়াটা অতিব জরুরী বিষয়।

ভাল মানের ওয়েব হোষ্টিং বেছে নেবার জন্য বেশ কিছু গুনাবলি বা বৈশিষ্টের দিকে নজর রাখতে। বিশ্বস্ত ওয়েব হোষ্টিং বিষয়ে আরও জানতে আমার “11 Web Hosting Things Read Before Buy” নামক পরবর্তি লেখাটি পড়তে পারেন।

Facebook Comments

You may also like

Online Virus Scan for Files & Folders

ফাইল ও ফোল্ডারের জন্য অনলাইন ভাইরাস স্ক্যানার: Online